পটভূমি

দুই হাজার আট সনের গোড়ার ঘটনা। কবি মোহন রায়হান ভারতে যান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে। এক অবসরে শরীরের রুটিন চেকআপ করেন কলকাতার বাইপাস অ্যাপোলোতে। হাই কোলেস্টেরল ও ট্রাইগ্লিসারাইড পাওয়া গেল আর ট্রেডমিল টেস্টে পজেটিভ ধরা পড়লো। সেখানকার হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ রবিন চক্রবর্তী এনজিওগ্রাম করতে বললেন। তাঁর ধারনা হার্টে ব্লকেজ আছে। খরচ বাংলাদেশের টাকায় বেশ। তবু রাজি হলেন মোহন রায়হান। হার্ট বলে কথা। পরদিন সকালে এনজিওগ্রাম করার কাগজপত্র নিয়ে ডাক্তারকে দেখিয়ে চেম্বার থেকে বের হয়েছেন। মনটা খারাপ। হাসপাতালের করিডোর ধরে হাঁটছেন। হঠাৎ চোখ পড়ে পাশের বুক স্টলে। তিনি এগিয়ে যান। অনেক বইয়ের ভিতর থেকে তুলে নেন একটি বই- ‘হৃদরোগ থেকে মুক্তি- ৫টি সহজ পদক্ষেপ। লেখক উপমহাদেশের প্রখ্যাত হার্টকেয়ার ও লাইফস্টাইল বিশেষজ্ঞ ডাঃ বিমল ছাজেড়-এমডি। ভারতে হার্টের নন-ইনভেসিভ চিকিৎসাপদ্ধতির অন্যতম অগ্রদূত। মোহন বইটি কিনে নিয়ে সারারাত পড়ে শেষ করলেন। সিদ্ধান্ত নিলেন অ্যাপোলোতে যাবেন না। এঞ্জিওগ্রাম, রিং কিংবা বাইপাস করাবেন না। কারণ মোহনের মুক্তিযোদ্ধা বড়ভাইকে উপমহাদেশের বিখ্যাত বাইপাস সার্জন দেবী শেঠী অপারেশন করার দুই বছরের মধ্যে মারা গেছেন। দেশে ফিরে এলেন তিনি। তিন মাস পর আবার গেলেন, ডাঃ বিমল ছাজেড়ের সাথে মোহন দেখা করলেন। তাঁর পরামর্শে যোগ দিলেন কলকাতায় সাওল হার্ট ক্যাম্পে। আর সেখানেই তিনি খোঁজ পান বিনা অপারেশনে বিনা রিংয়ে হার্টের ব্লকেজ নিরাময়ের ফলপ্রসূ চিকিৎসাপদ্ধতি SAAOL- Science And Art of Living।

আর পিছনে তাকাননি কবি মোহন রায়হান। নিজে সাওল চিকিৎসাপদ্ধতিতে সুস্থ হয়েছেন। পরে সেই চিকিৎসাপদ্ধতি লক্ষ লক্ষ হৃদরোগীর কল্যাণে বাংলাদেশে এনেছেন। শুরুতে কেবল হৃদরোগ মুক্তির জনসচেতনতা বৃদ্ধির সেমিনার ও কর্মশালা। পরবর্তীতে জনদাবীর প্রেক্ষিতে হার্টের ব্লকেজ চিকিৎসাসেবা দিতে সাওল হার্ট সেন্টারের প্রতিষ্ঠা। গত ১০ বছর প্রায় বিশ হাজার হৃদরোগীকে বিনা রিং বিনা অপারেশনে সুস্থ রাখা । বর্তমানে দেশব্যাপী জনসচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে সাওল স্বাস্থ্য আন্দোলন গড়ে তুলেছেন।

পরিচিতি

বাংলাদেশে বিনা অপারেশনে হৃদরোগ চিকিৎসার পথিকৃৎ সাওল হার্ট সেন্টার (বিডি) লিমিটেড, উপমহাদেশের বিশিষ্ট হৃদরোগ ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডাঃ বিমল ছাজেড়-এমডি প্রতিষ্ঠিত ভারতের সাওল হার্ট সেন্টারের ১৯তম শাখা। ২০০৯-এর ১০ ডিসেম্বর বাড়ি # ২৬, ইস্কাটন গার্ডেন রোড, ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত হয় সাওল হার্ট সেন্টার (বিডি) লিমিটেড। বর্তমানে ১২ হাজার স্কয়ারফিট আয়তন-এর একটি পূর্ণাঙ্গ বিনা রিং আর বিনা অপারেশনে হৃদরোগ চিকিৎসা এবং সুস্থ থাকার প্রধান উপায় লাইফস্টাইল ম্যানেজমেন্ট স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র।যেখানে রয়েছে- বিনা অপারেশনে হার্টের বাইপাসের অত্যাধুনিক ইইসপি মেশিন, হার্ট ব্লকেজ ক্লিনিং পদ্ধতি, রোগ নির্ণয়ের ডিজিটাল মেশিন সমন্বিত ল্যাবরেটরি, স্বাস্থ্য-বান্ধব অয়েল ফ্রি ক্যাফেটরিয়া, সুস্বাস্থ্যের জন্য ইয়োগা ও মেডিটেশনসহ আধুনিক ফিটনেস সেন্টার, খাদ্য ও পুষ্টি বিভাগ, দূরের রোগীদের জন্য পরিচ্ছন্ন গেস্ট হাউস।

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

সাওল হার্ট সেন্টার সাধারণভাবে জনস্বাস্থ্য বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে স্বাস্থ্য সুবিধাকে মানুষের চাওয়া-পাওয়ার কাছাকাছি করে তুলবে। আর বিশেষভাবে হৃদরোগ মুক্তির জরুরি চিকিৎসা জ্ঞান, আধুনিক মেশিন ও মেডিসিন, আদর্শ জীবনশৈলী আর হৃৎপিন্ডবান্ধব পরিকল্পিত খাদ্যাভ্যাস সমন্বিত সাওল চিকিৎসাপদ্ধতিকে দেশময় ছড়িয়ে দেবে। পাশাপাশি এই পদ্ধতিতে হার্টের ব্লকেজ, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, মানসিক চাপ- এসব জীবনঘাতি রোগ থেকে নিরাময়ের চিকিৎসাসেবা প্রদান করবে।